Lifestyle Pro BD- Fashion & Beauty Store

How To Get Rid of Acne ll ব্রণ থেকে ভাল থাকার উপায়

Acne is a skin condition that occurs when your hair follicles become plugged with oil and dead skin cells. It causes whiteheads, blackheads or pimples. Acne is most common among teenagers, though it affects people of all ages

গরমে স্কিন এর দরকার হয় একটু বেশি যত্ন আর যাদের স্কিন অয়েলি তাদের তো একটু বেশি যত্নের প্রয়োজন। গরমে আমাদের স্কিনে সমস্যা একটু বেশী হয় যার মধ্য ব্রণ অন্যতম।

একনি বা ব্রন হচ্ছে খুবই সাধারণ সমস্যা। কিন্তু অনেক দিন একনির সমস্যা থাকলে গভীর দাগ বা ক্ষতের সৃষ্টি হতে পারে। আর ব্রণের সাথে ব্লেমিস হয় যাতে চুলকানি বা ব্যথা হয় ও আমাদের মুখশ্রীর সৌন্দর্যও নষ্ট করে যা টেনশনের কারন হয়ে দেখা দেয়। তাই একনি বা ব্রন হলে দ্রু্ত ট্রিটমেন্ট করা জরুরী।

ব্রণ কি/What is Acne?
সেবা সিয়াস গ্রন্থি সেবাম নামে এক প্রকার তৈলাক্ত পদার্থ নিঃসরণ করে যা ত্বককে মসৃণ রাখে। হরমোনের ক্ষরণ মাত্রার ভারসাম্যের অভাবে ত্বকের তেলগ্রন্থি ও সেবাম ক্ষরণ বেড়ে যায় বা অন্য কোনো কারণে সেবা সিয়াস গ্রন্থির নালির মুখ বন্ধ হয়ে গেলে সেবাম নিঃসরণের বাধার সৃষ্টি হয় এতে লোমকুপ গুলো বন্ধ হয়ে যায় ও ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণ হয়। এভাবে জীবাণুর বিষক্রিয়ায় ত্বকে ব্রণের সৃষ্টি হয়। ব্রণের জীবাণুর নাম ‘প্রোপাইনো ব্যাকটেরিয়াম অ্যাকনে’।
ব্রণ তৈরি হওয়ার পর্যায়ে এর মুখ বন্ধ থাকায় সাদাটে দেখায়। বন্ধ নালির মুখে জমা কৃত কোষগুলি আস্ত আস্তে কালো হয়ে গেলে তাকে কালো ফোঁটা বলে। প্রায়ই ব্রণের চারপাশে প্রদাহ শুরু হয় এবং এর রং লাল দেখায়। এর উপর জীবাণু সংক্রমণ ঘটলে পুঁজ তৈরি হয়। বাইরে থেকে এদের ছোট দেখালেও এরা বেশ গভীর হতে পারে। এজন্য ব্রণে সংক্রমণ সেরে গেলেও মুখে দাগ থেকে যেতে পারে।

ব্রণের প্রকারভেদ/ Types of Acne
👉 ট্রপিক্যাল একনি– অতিরিক্ত গরম এবং বাতাসের আর্দ্রতা বেশি হলে পিঠে, উরুতে ব্রণ হয়ে থাকে।
👉 প্রিমিন্সট্রুয়াল একনি– কোনো কোনো মহিলার মাসিকের সাপ্তাহ খানেক আগে ৫-১০টির মতো ব্রণ মুখে দেখা দেয়।
👉 একনি কসমেটিকা– কোনো কোনো প্রসাধনী লাগাতার ব্যবহারে মুখে অল্প পরিমাণে ব্রণ হয়ে থাকে।
👉 একনি ডিটারজিনেকস– মুখ অতিরিক্ত সাবান দিয়ে ধুলেও ব্রণের পরিমাণ বেড়ে যায়।
👉 স্টেরয়েড একনি– স্টেরয়েড ঔষধ সেবনে হঠাৎ করে ব্রণ দেখা দেয়। ঔষুধ একাধারে অনেকদিন ব্যবহারে ব্রণের পরিমান বেড়ে যায় ।

ব্রণ কেন হয়/
ব্রণের সুনির্দিষ্ট কারণ সম্পর্কে বিজ্ঞানীরা নিশ্চিত না হলেও সাধারণত বয়ঃসন্ধির সময় প্রথম ব্রণ দেখা যায়। এ সময় হরমোনের ক্ষরণ মাত্রার ভারসাম্যের অভাবেই মুলত ত্বকে ব্রণ হয়।

এছাড়া হজমের গোলমাল, সুরাপান, বয়ঃসন্ধিকালে কিংবা অন্যান্য কারণে অনেকের মুখে ব্রণ হয়। আবার অনেক বিশেষজ্ঞ মনে করেন, ব্রনের অনেকগূলো কারণের ভিতর বংশগত কারণ একটি অন্যতম কারণ। প্রোপাইনি ব্যাকটেরিয়াম একনিস নামক এক ধরনের জীবাণু স্বাভাবিকভাবেই লোমের গোড়াতে থাকে। এন্ড্রোজেন হরমনের প্রভাবে সেবাম-এর নিঃসরণ ( মাথা, মুখ, ইত্যাদি জায়গায় তেলতেলে ভাব ) বেরে যায় এবং লোমের গোড়াতে উপস্থিত জীবাণু সেবাম থেকে ফ্রী ফ্যাটি অ্যাসিড তৈরি করে। অ্যাসিডের কারণে লোমের গোড়ায় প্রদাহের সৃষ্টি হয় এবং লোমের গোড়ায় কেরাটিন জমা হতে থাকে।
১. হরমোন জনিত সমস্যা থাকলে।
২. রাত জাগা অভ্যাস থাকলে।
৩. পানি কম খাওয়া ও তৈলাক্ত খাবার বেশি খাওয়া।
৪. স্কিন ঠিক মত পরিষ্কার না করা, এবং যাদের অতিরিক্ত অয়েলি স্কিন।
৫. এলার্জি খাবার বেশি খাওয়া
৬. অনিয়মিত পিরিয়ড
৭. নন ব্যান্ড, পাকিস্তানি, চায়না পণ্য ব্যবহার।।।

ব্রুণ ভাল করতে কি ব্যবহার করবেনঃ-
প্রথমত নিজের স্কিন সম্পর্কে জানতে হবে এবং ভাল মত স্কিন রুটিন মানতে হবে। ব্রণ স্কিনের যত্নের জন্য ব্রণ এর পণ্য ব্যবহার এর পাশাপাশি আপনাকে ভাল মানের Facewash/cleanser, Toner, serum, Moisturiser ব্যবহার করতে হয়।

অনেক মনে করি ক্রিম ব্যবহার করলে ব্রণ ভাল হয় এটা ভুল সব থেকে বেশী এবং গুরুত্বপূর্ণ হল ভাল ভাবে মুখ ক্লিঞ্জিং করা। তাই এই সময় ফুল স্কিনকেয়ার করলে দ্রুত রেজাল্ট আসে। এটা এক এক জন স্কিন এর অবস্থা উপর ও নির্ভর করে।

গুরুত্বপূর্ণ নোট
পণ্য মুখের উপরে উঠা ব্রণ কে ভাল করে।। কিন্ত কোন পণ্য ব্রণ হবার কারন ভাল করতে পারে না।। তাই আমাদের ব্রণ হবার কারন গুলা থেকে নিজেকে বিরত রাখতে হবে ও সঠিক পরিচর্যা করতে হবে।